প্রকাশিত: সন্ধ্যা ৭ টা ৪৭ মিনিট, ২০ জানুয়ারি ২০১৮, শনিবার | আপডেট: সন্ধ্যা ৭ টা ৪৭ মিনিট, ২০ জানুয়ারি ২০১৮, শনিবার
মোঃ আশরাফ হোসেন,আশুলিয়া ঃ



আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের এক গৃহবধু দেবর ও ভাশুরের নির্যাতন, হয়রানিমূলক মামলাসহ বিভিন্ন কুৎসার হাত থেকে নিজের পরিবারের সদস্যদের বাঁচাতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।
শনিবার সকাল ১০টায় আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের সভা কক্ষে উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে একটি লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। ভুক্তভোগী গৃহবধূ অকলিমা আক্তার আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের আলম হোসেনের স্ত্রী।
তিনি বলেন, বিগত ২০ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের এক বছর পর স্বামী প্রবাসে চলে যান। এরপরই শশুর বাড়িতে থাকাকালীন দেবর ইলিয়াস আলী ও ভাশুর জিন্নত আলীর লোলুপ দৃষ্টির শিকার হন। দেবর ও ভাশুর বিভিন্ন সময় তার উপর মিথ্যে দোষারূপ শুরু করতে থাকে। স্বামী আলম হোসেন দেশে ফিরে আসলে তারা শান্তিপূর্নভাবে বসবাস করতে থাকে। তার ফুফু শাশুড়ী তার স্বামীকে ৪ শতাংশ জমি দান করলে নতুন করে আবার পিছু নেয় দেবর ও ভাশুর। তার স্বামীকে হত্যার হুমকি প্রদান করায় আশুলিয়া থানায় একটি সাধারন ডায়রি করেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ তদন্ত করে চলে আসেন। গত ২৫ ডিসেম্বর ভাশুর জিন্নত আলী, দেবর ইলিয়াস আলী, মোস্তফা কামাল, নাজিম উদ্দিনসহ ১০/১২জন সন্ত্রাসী তাকে ও তার ছেলে এবং স্বামীকে মারপিট করেন। এসব বিষয়ে ইয়ারপুর, আশুলিয়া ও ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের নেতাদের দ্বারস্থ হলে তারা মীমাংসার চেষ্টা করেন। কিন্তু তার ভাশুর, দেবর স্থানীয় মাতব্বরদের রায়কে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে তার ও তার পরিবারের সদস্যদের উপর নির্যাতন চালাতে থাকে। থানা পুলিশও তাদের কোন সহায়তা করছেনা বলে তিনি অভিযোগ করেন। তিনি লিখিত বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

মোঃ আশরাফ হোসেন,আশুলিয়া ঃ

আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের এক গৃহবধু দেবর ও ভাশুরের নির্যাতন, হয়রানিমূলক মামলাসহ বিভিন্ন কুৎসার হাত থেকে নিজের পরিবারের সদস্যদের বাঁচাতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।
শনিবার সকাল ১০টায় আশুলিয়া প্রেস ক্লাবের সভা কক্ষে উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে একটি লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। ভুক্তভোগী গৃহবধূ অকলিমা আক্তার আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুর গ্রামের আলম হোসেনের স্ত্রী।
তিনি বলেন, বিগত ২০ বছর পূর্বে পারিবারিকভাবে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের এক বছর পর স্বামী প্রবাসে চলে যান। এরপরই শশুর বাড়িতে থাকাকালীন দেবর ইলিয়াস আলী ও ভাশুর জিন্নত আলীর লোলুপ দৃষ্টির শিকার হন। দেবর ও ভাশুর বিভিন্ন সময় তার উপর মিথ্যে দোষারূপ শুরু করতে থাকে। স্বামী আলম হোসেন দেশে ফিরে আসলে তারা শান্তিপূর্নভাবে বসবাস করতে থাকে। তার ফুফু শাশুড়ী তার স্বামীকে ৪ শতাংশ জমি দান করলে নতুন করে আবার পিছু নেয় দেবর ও ভাশুর। তার স্বামীকে হত্যার হুমকি প্রদান করায় আশুলিয়া থানায় একটি সাধারন ডায়রি করেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ তদন্ত করে চলে আসেন। গত ২৫ ডিসেম্বর ভাশুর জিন্নত আলী, দেবর ইলিয়াস আলী, মোস্তফা কামাল, নাজিম উদ্দিনসহ ১০/১২জন সন্ত্রাসী তাকে ও তার ছেলে এবং স্বামীকে মারপিট করেন। এসব বিষয়ে ইয়ারপুর, আশুলিয়া ও ধামসোনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানসহ স্থানীয় ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের নেতাদের দ্বারস্থ হলে তারা মীমাংসার চেষ্টা করেন। কিন্তু তার ভাশুর, দেবর স্থানীয় মাতব্বরদের রায়কে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে তার ও তার পরিবারের সদস্যদের উপর নির্যাতন চালাতে থাকে। থানা পুলিশও তাদের কোন সহায়তা করছেনা বলে তিনি অভিযোগ করেন। তিনি লিখিত বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
আপনার মন্তব্য
এই বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
৩০ জানুয়ারি ২০১৮
বিত্রমটি আই নিউজ ডেস্ক
অতি উৎসাহী অনুগামী কী কী করতে পারে? তা সিনেমার পর্দায় একাধিকবার উঠে এসেছে। তারকাদের জীবনেও এ ঘটনা নতুন নয়। ভালবাসার এই বিস্তারিত
৩০ জানুয়ারি ২০১৮
বিত্রমটি আই নিউজ ডেস্ক
নড়াইলের কালিয়া উপজেলার সালামাবাদ ইউনিয়নের ভাউড়িরচর গ্রামের জামাল হোসেনের ছাগলের খামারে আগুন লেগে প্রায় দেড়শত ছাগলের মৃত্যু হয়েছে। রবিবার (২৮ জানুয়ারী) বিস্তারিত
৩০ জানুয়ারি ২০১৮
বিত্রমটি আই নিউজ ডেস্ক
তারুণ্যদীপ্ত নাট্যসংগঠন "নাট্যদল" টি.এস.সি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতি বছর-ই সংস্কৃতিতে বিশেষ অবদান স্বরুপ সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্বদের সন্মাননা প্রদান করে থাকেl এরই ধারাবাহিকতায় বিস্তারিত
© স্বত্ব বিএমটিআইনিউজ ২০১৫ - ২০১৭
সম্পাদক :
মিঞা মুজিবুর রহমান
নির্বাহী সম্পাদক : শাহআলম শুভ
৩৭৩,দিলু রোড (তৃতীয় তলা)মগবাজার, ঢাকা-১২১৭
ফোন: ০২৯৩৪৯৩৭৩, ০১৯৩৫ ২২৬০৯৮
ইমেইল:bmtinews@gamil.com